অফিডিয়ান | পর্ব – ১৩

আজ জানালায় গ্লাস লাগাতে একদমই ভুলে গেছে রুমাইশা। কিন্তু কিচ্ছু করার নেই৷ এখন গ্লাস লাগাতে গিয়ে শব্দ হলেই ও পুরাই শেষ। আপাতত গ্লাসের ভাবনা মাথা থেকে তাড়াতাড়ি সরিয়ে সামনের দিকে মনযোগ দিল ও৷

১৬ পৃষ্ঠায় | পর্ব – ১৪

বিরক্ত দৃষ্টিতে তাকালো এনোন। কপাল কুঁচকালো সবাই। সর্ণালি বলেন,, কেন করেছিস এনোন?” এনোন মুখের ভঙ্গি বিরক্ত করে বলল,, ড্রাইভ করছিলাম তখন এক বাচ্চা মেয়ে আমার গাড়ির সামনে চলে আসছিল…গাড়ি ঘুরাতে গিয়ে গাছের সাথে ধাক্কা খেয়ে এক্সিডেন্ট হয়েছে।” মুখ বাজেভাবে বানিয়ে ফেলল সুজন।
লাভার নাকি ভিলেন

লাভার নাকি ভিলেন | পর্ব – ২২

আকাশ একটা থাপ্পড় মারল…  মেঘলা যেই গালে হাত দিতে যাবে আকাশ তার হাত ধরে বলল মেহেদী নস্ট হলে মেরে ফেলব। মেঘলাঃ মারলেন কেন?মিথ্যা কি বলেছি এনগেইজম্যান্ট আর বিয়ের মধ্যে পার্থক্য কি? আকাশঃ গাছে ফুল হওয়া আর ফল হওয়ার মাঝে যে…

এক বৃষ্টিস্নাত সন্ধ্যা | পর্ব – ৪৬

মাথায় পেইন হয়েছে এমন একটা ভাব ধরে সুয়ে আছি কেননা বিহান ভাই আবার আগের রুপে অবতরণ করেছেন।এখন উনার মাঝে বর বর কোনো ভাব নেই।এখন মামাবাড়িতে যাওয়া মানেই রিস্ক বিহান ভাই সারাক্ষণ বই পড়াবেন না পারলে অনেক অপমান করবেন।
আমি পদ্মজা

আমি পদ্মজা | পর্ব – ১০

হেমলতার তীক্ষ্ণ দৃষ্টি তীরের ফলার মতো পদ্মজার গায়ে বিঁধছে। সে কাঁপা স্বরে জানিয়ে দিল, ‘শুটিং দলের একজন এসেছিল।’ হেমলতার ঠোঁট দুটো ক্ষেপে উঠল প্রচন্ড আক্রোশে। পদ্মজা সবাইকে চিনে না। তাই তিনি পূর্ণাকে প্রশ্ন করেন, ‘পূর্ণা, কে এসেছিল?’ পূর্ণা দুই সেকেন্ড…

পাথরের বুকে ফুল | পর্ব – ২৫

এক গ্লাস পানি দিবেন?(ওয়াসেনাত করুন ভাঙা গলায় বলে উঠে) : : রিমন দৌড়ে পানি নিয়ে আসে।পানি হাতে নিতেই ওয়াসেনাতের হাত কাঁপতে শুরু করে।তবুও নিজেকে বহু কষ্টে সংযোত করার চেষ্টা করেও গ্লাসটি বাঁচাতে পারলোনা।ঠাসসসস করে পরে বিকট এক শব্দ হল।ওয়াসেনাত অরিএানের দিকে তাকিয়ে আহত দৃষ্টি নিক্ষেপ করে বলে উঠে……. __সরি

অঙ্গনে হৃদরঙ্গন | পর্ব – ২

হাতমুখ ধুয়ে সাদাফ ঘরে এসে দেখলো মশারির এক কোণা খুলে মেয়েটিকে বসতে দিয়েছে নুরু মিয়া। আর সে বসেছে একসাথে করে রাখা প্লাস্টিকের ডবল চেয়ারে। গামছায় হাত মুখ মুছতে মুছতে সে বললো, “কত এনেছো?” “যা পাওনা আছো, তার চেয়েও বেশি।” “বেশির দরকার নেই। ন্যায্যটুকু হলেই চলে। দাও…” নুরু

তোমাকে | মুন্নি আক্তার প্রিয়া | পর্ব – ০৪

পরী ভ্রু দুটি কুঁচকিয়ে বলে, “কী হয়েছে? এভাবে সামনে এসে দাঁড়ালেন কেন?” তুর্য পরীকে অবাক করে দিয়ে বলে, “এটা কোনো গান ছিল? আমার তো মনে হলো এতক্ষণ বসে বসে পাখিদের কিচিরমিচির শুনছিলাম।“ পরী তুর্যর দিকে এক আঙুল তুলে বলে, “হেয়…

এক সমুদ্র প্রেম

এক সমুদ্র প্রেম – ৩৩

ইকবাল চলে এলো। ব্য*র্থ হয়ে বেঞ্চে বসল। পুষ্প কী রা*গ করবে সে ফুল না দিলে? তার ভাবনার মধ্যে কেউ একজন চে*পে ধরে দুই চোখ। খানিকটা হকচকাল সে। পরপর মুচকি হেসে হাতদুখানি আক*ড়ে ধরল।

অগোচরে তুমি | পর্ব – ১৯

– কিরে তুই এখানে দাঁড়িয়ে আছিস কেন? আচমকায় মায়ের গলার আওয়াজ শুনতে পেয়ে আয়েশা বেগম একটু চমকে উঠলেও পরমুহূর্তেই মায়ের দিকে ফিরে নরম কন্ঠে বললো

লাজুকপাতা | পর্ব – ৪

মাস পেরোনোর আগেই আমার রান্নাঘরে ঢোকার সৌভাগ্য হলো। আমাকে অবশ্য পরী আপা বুদ্ধি দিলো। রাগে গজগজ করতে করতে বলল, “জরী শোন, শ্বশুরবাড়ি মামাবাড়ি না। খেয়েদেয়ে পড়ে পড়ে ঘুমানো ভালো কথা না। শাশুড়ী এখন কিছু বলছেন না মানে সবসময় ই চুপ করে থাকবে এমন না। তুই আগ বাড়িয়ে কাজ কর।”

তোমাকে | মুন্নি আক্তার প্রিয়া | পর্ব – ২৬

কমিউনিটি সেন্টারে বিয়ের জাঁকজমক আয়োজন করা হয়েছে। বড় বড় বক্সে বিয়ের গান-বাজনা বাজছে। গেট ধরার পর্ব শেষ হলে সবাই গিয়ে ভেতরে বসে। তুর্য সেই পরীদের বাড়ি থেকে শুরু করে এখনো পর্যন্ত পরীর সাথে সাথেই আছে। পরীর সাথে দু’দণ্ড মন খুলে…

অফিডিয়ান | পর্ব – ৩০

দুপুর গড়িয়ে বিকেল হলো। শামসুল বাসায় এসেছেন কিছুক্ষন আগে, খাওয়া দাওয়া করে নিজের রুমে বিশ্রাম নিচ্ছেন তিনি। রুমাইশা ঘুমাচ্ছে ওর ঘরে৷ সারাদিনের কাজের পর ক্লান্তি লাগছিলো ওর অনেক৷

ফ্লোরেনসিয়া – ১২

ভ্যাম্পায়ার'রা রসুনের সংস্পর্শে আসা তো দূরের কথা, রসুনের গন্ধও সহ্য করতে পারে না। ওরা রসুনের কথা চিন্তা করলেই অস্থির হয়ে উঠে। প্যানিক এ্যাটাকের শিকার হয়।

এক বৃষ্টিস্নাত সন্ধ্যা | পর্ব – ১৩

“প্রিয়,, কখনো ভাবিনি তোমার থেকে এমন চমৎকার গিফট পাবো।এই গিফট শুধু গিফট ই নয় আমার জীবনে তোমার আগমনের সূচনা। তোমাকে নিয়ে কত শত বার কবিতা লিখেছি কিন্তু তোমাকে বলতে পারি নি।তুমি আমার সেই অনুভূতি যার উপর রেগে গেলেও অন্য রকম অনূভুতি জাগ্রত হয়।যার রাগ আমার কাছে অভ্যাসে পরিণত হয়েছে।

১৬ বছর বয়স | পর্ব – ৩

শাওন দরজা ঠেলে রুমে ঢুকল। আমি তাকালাম। শাওনকে দেখে আমি সাথে সাথে মুখ ঘুরিয়ে নিলাম। উনি এখানে কেন! আমার কি ওনার সাথে এক রুমে থাকতে হবে এই ৭ দিন? শাওন এসে টেবিল ল্যাম্প এর পাস থেকে ওর ফোন টা নিয়ে আবার বেরিয়ে গেলে।

A Destination Wedding | পর্ব – ৩

আমি পড়ছিলাম,,,,এর মাঝেই আমার ফোনে কল আসলো।আমি নাম্বারটা চেক করে দেখি ঐশি কল দিয়েছে।আমি রিসিভ করে হ্যালো বলতেই ওপাশ থেকে একটা ছেলে বলে উঠলো,,,, ছেলেটি:হ্যালো,,,আসলে এই ফোনটা যার তার একটা অ্যাকসিডেন্ট হয়েছে।
বাইজি কন্যা

বাইজি কন্যা | পর্ব – ২৯

-' মেয়েটা ভীষণ ক্ষুধার্ত, মেয়েটা ভীষণ তৃষ্ণার্ত। ওর খাবার প্রয়োজন, পানি প্রয়োজন, ঘুম প্রয়োজন, ভালোবাসা, আদর, স্নেহ সবটা প্রয়োজন। এসবের অভাবে মেয়েটা নুয়ে পড়ছে, ক্ষীণ হয়ে যাচ্ছে মেয়েটার দেহ,মন সবটা, সবটা!'

অফিডিয়ান | পর্ব – ৭১

আফসানা কে বই গুলো দিয়ে রুমাইশা যখন রুমে এলো তখন সাফওয়ান বিছানায় বসে বালিশে হেলান দিয়ে ল্যাপটপে কিছু মেইল দেখছিলো। রাশা বিছনায় খেলছে। সাদমান আর শাহমীর সকাল থেকেই নিচ তলায়৷